সোনারগাঁয়ে মাসব্যাপী লোক কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব’র উদ্বোধন

রুদ্রবার্তা২৪.নেট: সোনারগাঁয়ে মাসব্যাপী লোক কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব ২০২১ আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। লোকজ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে অকৃত্রিমভাবে উপস্থাপন করা এবং দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের লুপ্তপ্রায় লোকজ ঐতিহ্যের অনন্য পুনরুদ্ধার ও নতুন প্রজন্মকে পরিচয় করতে সোমবার (১ মার্চ) বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি এ মেলার উদ্বোধন করেন।
এ সময় প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, লোক ও কারু শিল্প ফাউন্ডেশনের উন্নয়নে ইতিমধ্যে ১৪৭ কোটি টাকার উন্নয়ন মূলক প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। প্রায় ১০০ কোটি টাকার টেন্ডার হয়ে গেছে, বাকি কাজ খুর শিঘ্রই করা হবে।
ফাউন্ডেশনের পরিচালক ড. আহমেদ উল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, নারায়নগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. বদরুল আরেফিন। নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার (খ অঞ্চল) বিল্লাল হোসেন, উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা আতিকুর ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক এডভোকেট সামসুল ইসলাম ভুইয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গনি, বারদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল হক, সনমান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান ও শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ, উপজেলা জাতীয়পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম ইকবালসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।
বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন সূূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন শুরু হওয়া মেলা মার্চ মাস জুড়ে চলবে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ প্রদর্শনী খোলা থাকবে। মাসব্যাপী এই মেলায় থাকছে নওগাঁ ও মাগুরার শোলা শিল্প, রাজশাহীর শখের হাড়ি, চট্টগ্রামের তালপাখা ও নকশী পাখা, রংপুরের শতরঞ্জি, সোনারগাঁয়ের হাতি, ঘোড়া, পুতুল ও কাঠের কারু শিল্প, নকশীকাঁথা, বেত ও বাঁশের কারুশিল্প, নকশী হাতপাখা, সিলেট ও মুন্সিগঞ্জের শীতল পাটি, কুমিল্লার তামা-কাঁসা পিতলের কারুশিল্প, রাঙামাটি ও বান্দরবান জেলার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কারুপণ্য, কিশোরগঞ্জের টেরাকোটা শিল্প, সোনারগাঁয়ের পাটের কারুশিল্প, নাটোরের শোলার মুখোশ শিল্প, মুন্সিগঞ্জের পটচিত্র, ঢাকার কাগজের হস্তশিল্পসহ মোট ৭৫টি স্টল।
এছাড়াও লোক কারুশিল্প মেলা ও লোক উৎসবে বাউলগান, পালাগান, কবিগান, ভাওয়াইয়া ও ভাটিয়ালী গান, জারি-সারি ও হাছন রাজার গান, লালন সংগীত, মাইজভান্ডারী গান, মুর্শিদী গান, আলকাপ গান, গাঁয়ে হলুদের গান, বান্দরবান, বিরিশিরি, কমলগঞ্জের-মণিপুরী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শরিয়তী-মারফতি গান, ছড়া পাঠের আসর, পুঁথি পাঠ, গ্রামীণ খেলা, লাঠি খেলা, দোক খেলা, ঘুড়ি ওড়ানো, লোকজ জীবন প্রদর্শনী, লোকজ গল্প বলা, পিঠা প্রদর্শনী ইত্যাদি থাকবে।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন চত্বরে মাসব্যাপী মেলা খোলা থাকবে সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। এ মেলা চলবে আগামী ৩০ মার্চ পর্যন্ত।

Please follow and like us: