সেই আগুনে পোড়া রাজনীতি দেখতে চায় না বাংলার মানুষ : এম এ রশিদ

রুদ্রবার্তা২৪.নেট: বন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ এম. এ রশীদ বলেছেন, ভাষা শহীদদের অবমাননার উদ্দেশ্যে বিএনপি জামাত পরিকল্পিতভাবে বন্দর শহীদ মিনার কে অপবিত্র করার প্রয়াস চালিয়েছেন।

৫২ থেকে ৭১ পর্যন্ত বাংলার বিরোধিতা করে আসছেন যারা তারাই ধাপে ধাপে রূপ পাল্টে বিএনপি-জামাত এ পরিণত হয়েছে তারা পুতুল নাচ দিয়েছেন। শহিদ মিনার পবিত্র জায়গা পুতুল নাচের নয়। যারা এই নেক্কারজনক ঘটনা সৃষ্টি করেছেন তাদের সবাইকে আমরা চিহ্নিত করেছি। তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

খালেদা ২০০১ সনে কিভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে মানুষের উপর অত্যাচার করেছে তা আমরা দেখেছি। বাংলার মানুষ সেই আগুনে পোড়া রাজনীতি দেখতে চায় না। তারা উন্নয়নের রাজনীতি দেখতে চায়।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বন্দর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শনিবার দিবাগত রাতে বন্দর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি ও জামায়াত চক্র কর্তৃক শহীদ মিনার অবমানোনার প্রতিবাদে এ প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়।

প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আ’লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হুমায়ুন কবির মৃধা৷ এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালিমা হোসেন শান্তা, নাসিক’র ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফয়সাল মো. সাগর, ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ, নাসিক’র ২৬ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক একেএম ইব্রাহিম কাশেম,যুগ্ম সম্পাদক আক্তার হোসেন বি এ,বন্দর থানা আওয়ামীলীগ নেতা সহিদুল হাসান মৃধা, ১৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেন,নাজমুল হাসান আরিফ, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহীন তাহেরী সিনহা প্রমূখ।

Please follow and like us: