‘ইউরোপের যে কোনও দলকে হারাতে পারে বার্সেলোনা’

স্পোর্টস ডেস্ক: এই মৌসুমের শুরুতে বার্সেলোনার সাফল্যে ততটা বিশ্বাসী ছিলেন না রোনাল্ড কোমান। ডাচ কোচ বলেছিলেন, দল ক্রান্তিকালের মধ্যে রয়েছে। তবে নতুন বছর শুরু হতেই দলের পারফরম্যান্সের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে তার বিশ্বাস। মঙ্গলবার প্যারিস সেন্ত জার্মেইর বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগ শেষ ষোলোর প্রথম লেগের আগে বার্সা কোচ বললেন, তার দল ইউরোপের যে কোনও দলকে হারাতে পারে।

লা লিগায় টানা সাত ম্যাচ জিতে ন্যু ক্যাম্পে পিএসজিকে স্বাগত জানাবে বার্সা। সবশেষ ম্যাচে লিওনেল মেসির জোড়ায় আলাভেসকে ৫-১ গোলে হারিয়েছে তারা। যদিও গত সপ্তাহে কোপা দেল রে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে সেভিয়ার কাছে হেরে যায় কাতালানরা। ওই ব্যর্থতাকে খুব একটা পাত্তা দিচ্ছেন না কোমান।
সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে বার্সা কোচ বললেন, ‘এই মুহূর্তে বার্সেলোনার চেয়ে বেশি ভালো খেলতে আর কোনও দলকে দেখছি না আমি। কিন্তু আমি মনে করি না দলে অনেক কিছু পরিবর্তন করা ও তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার প্রত্যাশা ভালো ব্যাপার। এটা ভালো নয়।’

বার্সার মনোবল নিয়ে কোমান আরও যোগ করলেন, ‘যদিও আমাদের দলটা ভালো। এই দল ভালো করছে এবং শীর্ষ পর্যায়ে খেলছে। তারা শারীরিকভাবেও সেরা অবস্থানে। আমাদের চমৎকার খেলোয়াড়রা আছে, তার মানে আমরা প্রত্যেককে হারাতে পারি এবং ইউরোপের সেরা দলগুলোর সঙ্গে লড়াই করে আমরা তা প্রমাণ করতে চাই।’

পিএসজির ম্যাচে সার্জি রবার্তো, রোনাল্ড আরাউজো, আনসু ফাতি ও ফিলিপ্পে কৌতিনিয়োর মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে পাচ্ছে না বার্সা। তবে এই ম্যাচে জেরার্দ পিকের ফেরার সম্ভাবনা প্রবল। যদিও তার ফিটনেস দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন কোমান।
আর পিএসজি পাচ্ছে না নেইমার ও আনহেল দি মারিয়াকে। তাতে দলটির মূল ভরসা কিলিয়ান এমবাপেকে নিয়ে। কোমান যোগ করেছেন, ‘এটা শুধু মেসি ও এমবাপের দ্বৈরথ নয়। এটা দুই দলের লড়াই এবং তাদের মধ্যে একটি দলের আছে বিশ্বসেরা খেলোয়াড় মেসি। আমরা এই লড়াইয়ে তাকে তার সেরা ফর্মে দেখতে চাই।’

এমবাপের প্রশংসাও করলেন বার্সা কোচ, ‘ঠিক প্যারিসেও একই অবস্থা এমবাপেকে নিয়ে, যে সত্যিই ভালো এবং গতিময় খেলোয়াড়। সে আমাদের রক্ষণকে কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারে। কিন্তু এটা সুন্দর ব্যাপার। একজন ফুটবল ভক্ত হিসেবে এই খেলোয়াড়দের উপভোগ করা উচিত।’

Please follow and like us: