হিজলায় পল্লি বিদ্যুতের গ্রাহকের কাছ থেকে দুই কোটি টাকা আত্মসাত

হিজলা প্রতিনিধি: বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলায় মাননিয় প্রধান মন্ত্রির নির্দেশে “শেখ হাসিনার উদ্যেগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” এই স্লোগান কে সামনে রেখে ভিবিন্ন চরাঞ্চলের প্রায় ১৯ হাজার গ্রাহক এখন বিদ্যুতের আওতার৤ স্থানিয় সংসদ সদস্য জনাব পংকজ নাথ এমপির প্রচেষ্টায় চার কিলোমিটার সাব মেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে নদীর তলদেশ দিয়ে হিজরার চারটি ইউনিয়নের প্রায় ১৯ হাজার গ্রাহক এখন বিদ্যুতের আওতায় কিন্তু সিরে জমিনে গিয়ে দেখা যায়, মিটার প্রতি প্রতিটি গ্রাহকের কাছ থেকে ৩০০০-৪০০০/- টাকা নেওয়া হয়েছে৤ এই টাকা কারা নিয়েছে এমন প্রশ্নে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রাহকেরা বলেন প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়াম্যান ভিবিন্ন এলাকা ভিত্তিক একজন করে দায়িত্ব প্রদান করেছেন আর তারাই আমাদের কাছ থেকে এই টাকা নিয়েছে৤ সাথে দুই পয়েন্টের ৫-৬ ফুট ওয়াড়িং করে দিয়েছে৤ আবার কোন কোন গ্রাহক এত টাকা দিতে অস্বিকৃতি করলে তাদের কে লান্চিত ও করেছে এমন অভিযোগও পাওয়া গেছে৤ এ ব্যাপারে হিজলা উপজেলার পল্লি বিদ্যুৎ কর্মকর্ত মোঃ আমিনুল ইসলাম কে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি আমাদের কে জানিয়েছেন সরকারি নিয়মানুযায়ী তাদের সিটে নাম আছে তারা ৪৫০/- টাকা আর যাদের সিটে নাম নেই তাদের ৫৫০/- টাকা এবং বানিজ্যিক মিটার ৯৫০/- টাকা এর অতিরিক্ত কোন টাকা যদি কেউ নিয়ে থাকে আমাদের কাছে অভিযোগ করলে আমরা ব্যবস্থ নিব তরি বিরুদ্ধে যদি আমাদের কোন কর্মকর্তা বা কর্মচারী হয়ে থাকে৤ আর যদি কোন দালালের মাধ্যমে দিয়ে থাকে তাহলে আমাদের কিছু করার নেই৤ তারপর সংস্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের কে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করি কিন্তু কেউ ফোন রিসিব করেনি এরপর মেমানিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ নাসির উদ্দিন হাওলাদার কে মুঠো ফোনে জিজ্ঞাস করলে তিনি আমাদের জানিয়েছেন আমি এ ব্যাপারে কিছু জানি না৤তিনি এট বলে যে, এটা পল্লি বিদ্যুতের কাজ তারাই ভালো বলতে পারব৤ আর গ্রাহকরা কাকে টাকা ‍ দিয়েছে আর কে টাকা নিয়েছে এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না৤ আমি এলাকার চেয়ারম্যান এলাকার নতুন বিদ্যুৎ আসছে আমরা আনন্দিত এবং ভাল মন্দ দেখার দায়িত্ব আমাদের৤

Please follow and like us: