খাবার নিয়ে বিরোধ, ছুরিকাঘাতে নিহত ১ : আহত ২

রুদ্রবার্তা২৪.নেট: বন্দরে খাবার নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ স্টাফের ছুরিকাঘাতে এমভি নিউ টেকফোর জাহাজের অপর স্টাফ টিটন সরদার (৩০) নিহত হয়েছে। ওই সময় হামলাকারিদের বাধা দিতে গিয়ে তাজুল ইসলাম (৪৫) নামে আরো এক স্টাফ ও মোশারফ হোসেন ওরফে মুসা (৪২) নামে এক বাবুর্চী মারাত্মক ভাবে জখম হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে বন্দর থানার মাহামুদনগরস্থ ইনসি সিমেন্ট ফ্যাক্টরী শীতলক্ষা নদীতে এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয়রা আহতদের জখম অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে টিটন সরদারের মৃত্যু হয়।

হত্যাকান্ডের সংবাদ পেয়ে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ ফখরুদ্দীন ভূইয়া দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে আহত স্টাফ তাজুল ইসলাম বাদী হয়ে সদর নৌ-থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চালাচ্ছে।

আহত স্টাফ তাজুল ইসলাম গনমাধ্যমকে জানায়, গত ১৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকালে এমভি নিউ টেকফোর নামে একটি ক্লিংকার জাহাজ সুদূর চট্রগ্রাম থেকে বন্দরে মাহামুদনগরস্থ ইনসি সিমেন্ট ফ্যাক্টরী উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে।

প্রায় সময় জাহাজে খাবার দাবার নিয়ে প্রায় সময় নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানার ইটনা বরফি এলাকার আব্দুল সাত্তার সরদারের সাথে ছেলে উক্ত জাহাজের স্টাফ টিটন সরদারের সাথে গোপালগঞ্জ জেলার একই থানার বরপা এলাকার দিলু মিনা মিয়ংার দুই ছেলে সবুজ মিনা ও নাহিদ মিনার সাথে ঝগড়া হয়।

এর ধারাবাহিকতায় শুক্রবার দুপুরে খাবার নিয়ে টিটন সরদারের সাথে সবুজ মিনার কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ওই দিন বিকেলে সবুজ মিনা ও তার ভাই নাহিদ মিনা ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে টিটন সরদ্রাকে বেদম ভাবে কুপিয়ে জখম করে।

ওই সময় আমি ও আমাদের জাহাজের বাবুর্চী মুছা টিটনকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে হামলাকারি দুই ভাই আমাদেরকে বেদম ভাবে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে নদী সাঁতরে পালিয়ে যায়।

আমরা স্থানীয় এলাকাবাসী সহযোগিতায় আহতদের মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নারাযণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওযার পথে টিটনের মৃত্যু হয়। আপর আহত বাবুর্চী মুছা নারাযণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ ফখরুদ্দীন ভূইয়া গনমাধ্যমকে জানিয়েছে, এলাকাবাসী মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

খাবার নিয়ে দন্ধের জের ধরে হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে। এ ব্যাপারে সদর নৌ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Please follow and like us: