তাড়া খেয়ে ইয়াবা ফেলে পালালো পুলিশের এএসআই

রুদ্রবার্তা২৪.কম: রূপগঞ্জে এক পুলিশ সদস্য ও সোর্সের ইয়াবা সেবনের খবর পেয়ে অভিযান চালায় ভোলাবো ফাঁড়ি পুলিশ। এ সময় ইয়াবাসেবী পুলিশ সদস্য পালিয়ে গেলেও ১০০ পিস ইয়াবাসহ তার সোর্সকে আটক করা হয়েছে।
শনিবার (১২ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার কাঞ্জন পৌরসভার কালাদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য ভোলাবো তদন্ত কেন্দ্রের সহকারি উপ পরিদর্শক রাশিদুল হাসান এবং আটক সোর্স আল আমিন। তারা আল আমিনের বাড়িতেই ইয়াবা সেবন করছিল বলে জানায় পুলিশ।
ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম জানান, ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই রাশিদুল হাসান মাদক সেবন ও তার শেল্টারে তারই সোর্স কালাদী এলাকায় মৃত জমির আলীর ছেলে আল আমিন ইয়াবা বিক্রি ও সেবন করে পুলিশের কাছে এমন সংবাদ আসে। ঘটনাটি তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ার পর রাশিদুল ইসলামকে বহুবার সতর্ক করার পরও সে কোন কর্নপাত করেনি।
শনিবার রাত ৯ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ কালাদী এলাকায় সোর্স আল আমিনের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ইয়াবা সেবনরত অবস্থায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে রাশিদুল পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে ১০০ পিস ইয়াবাসহ আল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে এএসআই রাশিদুলের ব্যবহৃত মোটর সাইকেল জব্দ করা হয় এবং ২টি রামদা, নগদ ৬ হাজার ৮শ’ টাকা জব্দ করা হয়।
আল আমিনের দেয়া তথ্য মতে, আরো ২ মাদক ব্যবসায়ী কাঞ্চন এলাকার সামছুলের ছেলে অলিউর রহমান অলি ও রতন মিয়ার ছেলে শাজালালকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান বলেন, মাদকের সাথে জড়িত থাকার ব্যাপারে এএসআইয়ের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

Please follow and like us: