ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার দাবি বিএনপি নেতা সাখাওয়াতের

রুদ্রবার্তা২৪.কম: অবিলম্বে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার দাবি জানিয়ে মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, ‘ছাত্রলীগের কোন কর্মী আর পড়াশোনার মধ্যে নাই। তারা আজকে দেশের মানুষের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তারা খুনিতে পরিণত হয়েছে। চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসের মাধ্যমে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে তারা। আজকে এই সভা থেকে বলতে চাই, অবিলম্বে ওই সন্ত্রাসী ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করে দেশ ও দেশের মানুষকে রক্ষা করা হোক।’
রোববার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সামনে অনুষ্ঠিত জেলা জাতীয়তাবাদী আইন ছাত্র ফোরামের প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘বর্তমান সরকার এই ১২ বছরে একযোগে এই বাংলাদেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিয়েছে। ছাত্রলীগের ইতিহাস নাকি এদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস, মানুষের পক্ষের ইতিহাস। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ছাত্রলীগের পূর্বের ঐতিহ্য নষ্ট করে দিয়ে ছাত্রলীগকে মানুষ হত্যার, ছাত্র হত্যার কারিগর বানিয়ে দিয়েছে। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র রাজনীতি নেই, সবই ছাত্রলীগের। অন্য কোন ছাত্র সংগঠনের রাজনীতি করার অধিকার নাই।’
তিনি আরও বলেন, ‘ছাত্রলীগের হাতে বই, খাতা, কলম না দিয়ে অস্ত্র তুলে দিয়েছে বর্তমান সরকার। সেই অস্ত্র দিয়ে সারা বাংলাদেশে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে, দেশকে লুটেপুটে খাচ্ছে। এদেশের প্রতিটি জায়গার খুন, হত্যার পেছনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জড়িত। এর জন্য দায়ী বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার।’
বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এদেশে কোন গণতন্ত্র নাই, আইনের শাসন নাই। আজকে বিরোধী দল হলেই তাদের বিরুদ্ধে মামলা। দেশনেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী যিনি ৭৪ বছর বয়সী একজন নারীকে মিথ্যা মামলায় জেলে রাখা হয়েছে। আমরা তার মুক্তি দাবি করছি।’
ছাত্রলীগের নির্মমতার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘গাঁ শিউরে ওঠে। কী নির্মমভাবে আবরার ফাহাদকে হত্যা করা হয়েছে! দেশের বিরুদ্ধে ভারতের সাথে চুক্তি করেছে সরকার। হাসিনা সরকারের দেশদ্রোহী চুক্তির বিরুদ্ধে কথা বলায়, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।’
জেলা আইন ছাত্র ফোরামের সভাপতি কেএম সুমনের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি এড. সরকার হুমায়ন, জেলা মৎস্যজীবী দলের আহŸায়ক এড. আনোয়ার প্রধান, বিএনপিপন্থী আইনজীবী নেতা এড. নয়ন মিয়া, এড. আব্দুস সামাদ মোল্লা, এড. খোরশেদ আলম মোল্লা, জেলা আইন ছাত্র ফোরামের সিনিয়র সহ সভাপতি আদনান মোল্লা, সহ সভাপতি ইসমাইল হোসেন, মাজহার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আতা-ই-রাব্বি, যুগ্ম সম্পাদক কাওসার আহমেদ, শাহাদাৎ হোসেন প্রমুখ।

Please follow and like us: