জি.কে শামীম ও যুবলীগ নেতা সম্রাট গ্রেফতার হওয়ায় গা ঢাকা দিয়েছে মতিউর রহমান মতি

রুদ্রবার্তা২৪.কম: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-২ ও ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি মতিউর রহমান মতি (অরূপে বোমা মতি) জি.কে শামীম ও যুবলীগ নেতা সম্রাট গ্রেফতার হওয়ায় গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানায় সিদ্ধিরগঞ্জবাসী। জানা যায়, এই মতিউর রহমান মতি বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে নাঃগঞ্জের এক প্রভাবশালী এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে সরকারি জমি দখল করে নূরে মদিনা মাদ্রাসা, বিস্কুট ফ্যাক্টরি, অটোরিকশার গেরেজ, অফিস এবং বিভিন্ন জায়গায় একাধিক ফ্ল্যাট ও বাড়ি করেছেন, আইলপাড়া, সুমীলপাড়া সহ সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন জায়গায় প্রায় ১৫ বিঘা সরকারি সম্পত্তি দখল করেছে বলে এলাকাবাসী জানান। মতিউর রহমাম মতির নিকট আত্মীয় নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, তিনি মালয়েশিয়াতে ফ্ল্যাট কিনেছেন। সিদ্ধিরগঞ্জ এ সায়লো রোডে ৫ তলা বাড়ি সহ একাধিক বাড়ি এবং আইলপাড়া এলাকায় তার ৮ টি বাড়ি, নাঃগঞ্জের জামতলায় একটি বাড়ি এবং বসুন্ধরা এলাকায় ও তার একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। সেই সাথে পাবলিকের জায়গা দখল করে ওরিয়ান গ্রুপ এর কাছে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। ইপিজেডে তার ২৭০ টি গাড়ি ভাড়ায় চলে বলে সূত্রে জানা গেছে এছাড়াও ইপিজেডের সকল ব্যবসা বানিজ্য দখল করে নিয়ে তার ভাগিনাদেরকে দিয়ে পরিচালনা করান বলে অভিযোগ উঠেছে। এরা হলেন ভাগিনা মামুন, রাজু, রুহুল, মাসুদ, তার সহযোগী আলামীন (ভাতবিক্রয় কারী), মানিক মাস্টার( পেট কাটা মানিক) ও তার ভাই মাহবুব। এদের দাপটে সিদ্ধিরগঞ্জের সাধারণ মানুস অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। উক্ত চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে সিদ্ধিরগঞ্জবাসী। এ বিষয়ে জানার জন্য মতিউর রহমান মতির মোবাইল ফোনে ফোন করা হলে তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়।

Please follow and like us: